রমজান মাসের মর্যাদা রক্ষা করা আমাদের সকলের দায়িত্ব

কাজী মোহাম্মদ ইব্রাহীম জুয়েল বছর ঘুরে আমাদের মাঝে আবার এলো পবিত্র মাহে রমজান। রহমত, বরকত ও মাগফিরাতের আকাঙ্খা নিয়ে আমরা পবিত্র সিয়াম পালন করবো। তবে রমজানের পবিত্রতা রক্ষা করা আমাদের সকলের দায়িত্ব ও কর্তব্য। দিনের বেলা পানাহার বন্ধ এবং অশ্লিলতা বেহায়াপনা পরিহার করতে হবে। কারো আচরনে যেন কোন রোজাদারের সমস্যা না হয় সেদিকে নজর দেয়া সকলের ঈমানী দায়িত্ব।
তাছাড়া বর্তমানে নিত্যপণ্যের বাজারে সব কিছুর দামই ঊর্ধ্বগতি। তাই এর জন্য ব্যবসায়ীদেরকে সহযোগীতার মনোভাব নিয়ে ব্যবসা করা প্রয়োজন। অধিক লাভের আশায় সাধারণ মানুষের ভোগান্তি বাড়িয়ে শুধু রমজানের মর্যাদাই ক্ষুন্ন করা হয় না বরং নিজের রোজা নামাজ এবং আমলকেও বিনষ্ট করা হয়। আমরা দেখেছি পৃথিবীর অনেক দেশে রমজান আসলে নিত্য পণ্যের দাম কমে আসে এবং শুধু তাই নয় অধিকাংশ পণ্যের সাথে বোনাস দেয়া হয়। আমাদের দেশের ব্যবসায়ীদের মধ্যে এই প্রবণতা কখনই চোখে পড়ে না। বরং রমজান এলে সবাই প্রতিযোগীতায় লিপ্ত হয় পণ্যের দাম কিভাবে বাড়ানো যায়। যা অত্যন্ত দুঃখজনক। আমরা ব্যবসায়ীদের এমন অনৈসলামিক মনোভাব পরিহারের জন্য আহবান জানাচ্ছি। পাশাপাশি সরকারের সংশ্লিষ্ট প্রশাসনকে আহ্বান জানাবো নিত্য পণ্যের দাম নিয়ে যাবে অসাধু ব্যবসায়ীরা কারসাজি করতে না পারে সেই জন্য কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করুন। যাতে রোজাদাররা শান্তিতে রোজা রেখে রোজার ফজিলত হাসিল করতে পারেন। -আমিন

Leave a Reply

Your email address will not be published.