শাহমাহমুদপুরে সন্ধ্যার পর দুর্ধর্ষ চুরি

এস আর শাহ আলম চাঁদপুর সদর ৪ নং শাহমাহমুদপুর ইউনিয়নের হাজী বাড়িতে সন্ধ্যার পরে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ঘটনার বিবরণে জানা যায়, ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ড মহামায়া এলাকার হাজ্বি ডাঃ সেকান্তর বাড়ির মীর হোসেনের ১ তলা ভবনে ডাকাতির ঘটনা ঘটে। হোসেনের স্ত্রী শিল্পি বেগম বলেন, আমার স্বামী ঢাকাতে ব্যবসা করে। মঙ্গলবার সন্ধ্যার পরে দরজা বন্ধ করে মেইন গেটে তালা মেরে আমি সন্তানদের নিয়ে পাশেই বোনের ঘরে চলে যাই। কিছুক্ষণ পরে আনুমানিক ৭ টা ত্রিশ মিনিটের সময় আমি নিজের ঘরে ঢুকে দেখি স্টিলের আলমিরার দরজা ভাঙা। তখনি গাছ থেকে মানুষ নামার স্বদ্ব পেয়ে বাহিরে এসে দেখি একজন লুঙ্গি পড়া লোক পিছনের সুপাড়ি বাগান দিয়ে দৌরে পালায়।

তখন আমার চিৎকার শুনে আস পাশের মানুষজন দৌরে আসলে আমি ঘরে গিয়ে দেখি আমার আলমারিতে থাকা নগত ৩ লাখ টাকা ও আনুমানিক ১০ ভরি ওজনের স্বর্ণ অলংকার নেই। সব চুরি হয়ে গেছে। পরে সিঁড়িতে গিয়ে দেখা যায় ছাদের দড়জা ভাঙ্গা। তাতে বুঝতে পারি ডাকাতরা ভবনের সাথে থাকা রেইনট্রি কড়ই গাছ বেয়ে ছাদে উঠে সিড়ির দড়জা ভেঙে ঘড়ের ভেতর প্রবেশ করে আলমিরার দড়জা ভেঙে নগদ টাকা ও স্বর্ণ অলংকার চুরি করে পালিয়ে যায়। এদিকে এলাকাবাসী বলেন, সন্ধ্যার সময় এমন বড়ো ধরনের চুরি নজির বিহীন। অপর দিকে চুরির হওয়ার পর শিল্পির পরিবার চাঁদপুর সদর মডেল থানায় সংবাদ দিলে পুলিশ এসে নিশ্চিত হন। এ ব্যপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.