চাঁদপুর পলিটেকনিকে ছাত্রলীগ দু’গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ৪

কচুয়ায় অবস্থিত চাঁদপুর পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে আধিপত্য বিস্তার কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে ৪ জন আহত হয়েছে। গতকাল শনিবার বিকেলে পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে স্থানীয় সাংসদ ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীর এমপি এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক ড. সেলিম মাহমুদ গ্রুপের ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা রাজনৈতিক আধিপত্য বিস্তার নিয়ে বাকবিতন্ডায় জড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে উভয় গ্রুপের নেতাকর্মী চরম উত্তেজিত হয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে উভয় পক্ষের ৪জন আহত হয়েছে।

আহতরা হচ্ছেন- চাঁদপুর পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ শাকিল হোসেন (২১), যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ফজলে রাব্বি (২২), সাংগঠনিক সম্পাদক রবিউল ইসলাম (২২) ও শেখ সজিব (২২)।

আহত ফজলে রাব্বি জানান, দীর্ঘদিন কলেজ বন্ধ থাকার পর খুলে দেওয়ার আনন্দে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও স্থানীয় সংসদ সদস্য ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীরের স্লোগান দিয়ে ক্যাম্পাসে প্রবেশ করি। এসময় সেলিম মাহমুদ গ্রুপের শেখ সজিবের নেতৃত্বে নুর মোহাম্মদ (২০), জুনাইদ (২০), জাহিদ (২০, রায়হান (২০), রাকিব (২০)সহ ২০-৩০জন আমাদের উপর অতর্কিত হামলা চালায়।

তিনি আরো জানান, বর্তমান সভাপতি নাসির উদ্দীন প্রবাসে চলে যাওয়ায় শূন্যপদ পাওয়া কেন্দ্র করে দু’গ্রুপের মাঝে এ সংঘর্ষ বাঁধে। শাকিল বর্তমানে কচুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন। বাকীরা প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে বাড়ি চলে গিয়েছে।

এদিকে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, আহত শাকিল, ফজলে রাব্বি ও রবিউল ইসলাম স্থানীয় সাংসদ ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীর এমপির সমর্থক এবং শেখ সজিব বাংলাদেশ আাওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক ড. সেলিম মাহমুদের সমর্থক। এ বিষয়ে স্থানীয় সাংসদ ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীর এমপির সমর্থক উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি ও পৌর কাউন্সিলর কামাল হোসেন বলেন, চাঁদপুর পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শাকিল হোসেনের উপর বর্বরোচিত হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানোর পাশাপাশি এই হামলায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানাচ্ছি। এমপি স্যারের সাথে পরামর্শক্রমে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

কচুয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মহিউদ্দিন জানান, ছাত্রলীগের দুগ্রুপের সংঘর্ষের সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে ফোর্স পাঠিয়েছি। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আছে। আহতদের পক্ষ থেকে অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

স্টাফ রিপোর্টার

Leave a Reply

Your email address will not be published.