ফরিদগঞ্জে বৃদ্ধার ওপর সন্ত্রাসী হামলা

ফরিদগঞ্জে সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়েছেন হায়াতুন নেছ (৭৫) নামে এক বৃদ্ধা। এ ঘটনায় আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে বিচার প্রার্থনা করে থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন গুরুতর আহত বৃদ্ধার মেয়ে রাহেলা বেগম। সম্পত্তিগত বিরোধ কেন্দ্র করে এ হামলার ঘটনা ঘটে বলে অভিযোগে জানা গেছে। ঘটনাটি ঘটে গত শনিবার উপজেলার ১১ নং চর দুঃখীয়া ইউনিয়নের সন্তোষপুর গ্রামের বাশি বেপারী বাড়ীতে।

ঘটনা জানতে গেলে হামলার শিকার বৃদ্ধা হায়াতুন নেছা কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। তিনি এ প্রতিনিধিকে জানান, ‘আঁর মাথা হাডাই দিছে, আঁের মারি হালাইবো। আঁই সরকারেরতন বিচার চাই।’

থানায় লিখিত অভিযোগ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, বাদী পক্ষের সাথে একই বাড়ীর মহর আলী গংদের সম্পত্তিগত বিরোধ চলে আসছিলো। জানা গেছে, একই বাড়ীর নুর মিয়াগংদের কাছ থেকে রাহেলা বেগমগং এক টুকরো জমি ক্রয় করেন। ওই জমি খরিদ কারার পর থেকেই মহর আলীগং বিভিন্ন চাঁদাদাবী ও ওই জমিটি দখল নেওয়ার চেষ্টায় লিপ্ত রয়েছেন।

ভুক্তভোগীরা অভিযুক্তদের অত্যাচারের শিকার হয়ে নিজেদের খরিদকৃত সম্পত্তি রক্ষার জন্য চলতি বছরের ৩০ মে চাঁদপুরে আদালতে মামলা দায়ের করেন। মামলাটি আমলে নিয়ে বিজ্ঞ বিচারক ফরিদগঞ্জ থানা পুলিশ এর মাধ্যমে অভিযুক্ত মহর আলী গংদের আদালতে তলব করেন। আদালতে মামলা চলমান থাকাবস্থায় অভিযুক্ত মহর আলীগং পুনরায় ওই সম্পত্তি দখল করার চেষ্টা করেন। ওই সময়ে ভুক্তভোগীরা মহর আলী গংদের বাধা দিতে গেলে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে হামলা চালায়। এসময় মহর আলী গংদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে বৃদ্ধা হায়াতুন নেছা মাথায় গুরুতর আঘাত প্রাপ্ত হয়েছেন।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত মহর আলী গংদের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাদের পাওয়া যায়নি।
ফরিদগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ শহীদ হোসেন জানিয়েছেন, বৃদ্ধার উপর এমন আঘাতের বিষয়টি দুঃখজনক। অভিযোগের প্রেক্ষিতে আইনানুগ ব্যবস্থা পক্রিয়াধীন আছে।

ফরিদগঞ্জ প্রতিনিধি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *