সপ্তাহের ব্যবধানে বেড়েছে শনাক্ত ও মৃত্যু

এক সপ্তাহের ব্যবধানে সব সূচকে করোনার ঊর্ধ্বগামী (নমুনা পরীক্ষা, শনাক্ত, মৃত্যু এবং সুস্থতা) প্রবণতা অব্যাহত রয়েছে। চলতি বছরের ইপিডেমিওলজিক্যাল দ্বিতীয় সপ্তাহের (১০-১৬ জানুয়ারি পর্যন্ত) তুলনায় তৃতীয় সপ্তাহে (১৭-২৩ জানুয়ারি পর্যন্ত) নমুনা পরীক্ষা ৩৪ দশমিক ৭ শতাংশ, শনাক্ত ১৮০ দশমিক ৮ শতাংশ, সুস্থতা ৯৯ দশমিক ৬ শতাংশ এবং মৃত্যু ৮৮ দশমিক এক শতাংশ বেড়েছে।

সোমবার (২৪ জানুয়ারি) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের করোনাবিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।
স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সূত্র জানায়, ইপিডেমিওলজিক্যাল দ্বিতীয় সপ্তাহে সর্বমোট ১ লাখ ৮৯ হাজার ৬৩০টি নমুনা পরীক্ষা করে ২৪ হাজার ১১ জন রোগী শনাক্ত হয়। একই সময়ে ১ হাজার ৯৮৮ জন সুস্থ এবং ৪২ জনের মৃত্যু হয়। ইপিডেমিওলজিক্যাল তৃতীয় সপ্তাহে ২ লাখ ৫৫ হাজার ৪৫৫ টি নমুনা পরীক্ষায় ৬৭ হাজার ৪২৫ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়। একই সময়ে সুস্থ হন ৩ হাজার ৯৬৮ জন। এ সময়ে সর্বমোট ৭৯ জন রোগীর মৃত্যু হয়।

পরিসংখ্যান অনুসারে, গত এক সপ্তাহে করোনায় মৃত ৭৯ জনের মধ্যে পুরুষ ৪৭ জন ও নারী ২৩ জন। তাদের মধ্যে ৫১ জনই (৬৪ দশমিক ৬ শতাংশ) টিকা নেননি। অবশিষ্ট ২৮ জন (৩৫ দশমিক ৪ শতাংশ) টিকা নিয়েছেন। এ ২৮ জনের মধ্যে প্রথম ডোজ নিয়েছেন ছয়জন ও ২২ জন নিয়েছেন দ্বিতীয় ডোজ। গত একসপ্তাহে করোনায় মৃত ৭৯ জনের মধ্যে ৫২ জনের কো-মরবিডিটিতে ভুগছিলেন। তাদের মধ্যে অধিকাংশ রোগী ডায়াবেটিস ও উচ্চরক্তচাপে ভুগছিলেন। এছাড়া অনেকে বক্ষব্যাধি, হৃদরোগ, কিডনি, গ্যাস্ট্রোলিভার, স্ট্রোক এবং ক্যানসারে ভুগছিলেন।

সময় ডেস্ক

Leave a Reply

Your email address will not be published.