সুশান্তর মৃত্যু মামলা কি এগিয়েছে, তথ্য জানার আবেদনে যা বলল সিবিআই

সুশান্ত সিং রাজপুত মারা গেছেন প্রায় দুই বছর হয়ে গেল। ২০২০ সালের আগস্ট মাসে সুশান্তর মৃত্যুর পর এই মামলা নিয়েছিল ভারতের কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা (সিবিআই)। এরপর জিজ্ঞাসাবাদও চালায় তারা। কিন্তু দুই বছর হতে চলল, এখনো তদন্ত নিয়ে ধোঁয়াশা কাটছেই না। শুধু তা–ই নয়, সুশান্ত সিং রাজপুত অপমৃত্যু মামলা নিয়ে একটি আরটিআই আবেদনও প্রত্যাখ্যান করেছে সিবিআই।

ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো বলছে, ২০২০ সালের ১৪ জুন মুম্বাইয়ের বান্দ্রার কার্টার রোডের ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হয় সুশান্তর লাশ। ৩৪ বছর বয়সী অভিনেতার রহস্যমৃত্যুকে শুরুতেই ‘আত্মহত্যা’ বলে ঘোষণা করেছিল মুম্বাই পুলিশ। এসব নিয়ে বিতর্কও কম হয়নি। অবশেষে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে এই মামলা যায় সিবিআইয়ের হাতে।

 সুশান্তর-মৃত্যু-মামলা-কি-এগিয়েছে-তথ্য-জানার-আবেদনে-যা-বলল-সিবিআই

ভারতীয় সংবাদ সংস্থা এএনআই বলছে, তথ্য জানার অধিকার আইনের আওতায় সুশান্তের মৃত্যু মামলা নিয়ে একটি আবেদন জমা পড়েছিল সিবিআইয়ের কাছে। কিন্তু সংস্থাটি এই মামলা সম্পর্কিত কোনও তথ্য দিতে রাজি হয়নি। লিখিত জবাবে সংস্থাটি জানিয়েছে, ‘সুশান্ত সিং রাজপুতের মামলার তদন্ত আপতত চলমান আছে। এই মামলা সম্পর্কিত কোনও তথ্য প্রকাশ্যে আনলে সেটা তদন্ত প্রক্রিয়াকে ব্যাহত করতে পারে। তাই যে তথ্য জানতে চাওয়া হয়েছে তা দেওয়া যাবে না।’

একটা দীর্ঘ সময় পরও কেন এই অপমৃত্যু মামলার কোনো কূলকিনারা হচ্ছে না, তা নিয়েও ভক্তরা প্রশ্ন তুলেছেন। অভিনেতাকে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে তাঁর প্রেমিক রিয়া চক্রবর্তী ও তাঁর পরিবারের বিরুদ্ধে—এমনটা শোনা গেছে অনেকবার। সুশান্তর মৃত্যুর পর তীব্র কটাক্ষের সম্মুখীনও হয়েছিলেন রিয়া। সুশান্তের মৃত্যু–সম্পর্কিত মাদক মামলায় জেলেও থাকতে হয়েছে রিয়াকে। তবে ধীরে ধীরে স্বাভাবিক ছন্দে ফিরছেন এই বাঙালি অভিনেত্রী।
প্রয়াত অভিনেতার পরিবারে রয়েছেন চার বোন ও বাবা। সুশান্তের পরিবার এখনো বাড়ির ছোট ছেলের অপমৃত্যুর ন্যায়বিচারের অপেক্ষায়। সুশান্তর ভক্তরাও অপেক্ষায় দিন গুনছেন প্রিয় তারকার রহস্যময় মৃত্যুর কারণ জানতে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.