ফরিদগঞ্জে উদ্বোধনের পূর্বেই সেতুর অ্যাপ্রোচ সড়কে ধস

উদ্বোধন আগেই সংযোগ সড়কে ভাংঙ্গন কতৃপক্ষ নিরব থাকায় এলাকাবাসী ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। নিকলী হাওড় বা ধানুয়া মিনি হাওড় হিসাবে পরিচিতি পাওয়া চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলার ডাকাতিয়া নদীর উপর নির্মিত গাজীপুর-ধানুয়া সেতুর অ্যাপ্রোচ সড়কের নিচের বালি সরে গিয়ে ধসের সৃষ্টি হয়েছে।

জানাযায়, ২০১৭-২০১৮ অর্থ বছরে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগ ফরিদগঞ্জ উপজেলার ৮নং পাইকপাড়া দক্ষিণ ইউনিয়নের গাজীপুর বাজার ও গোবিন্দপুর উত্তর ইউনিয়নের ধানুয়া গ্রামের মধ্য দিয়ে ডাকাতিয়া নদীর উপর ৬ কোটি ২২ লাখ ২৫ হাজার টাকা ব্যয়ে ৯৯ মিটার লম্বা সেতুটি নির্মাণ শুরু করে এবং ২০১৯ সালের শেষের দিকে এসে সেতুটি শেষ হয়।

এ বিষয়ে পাইকপাড়া দক্ষিণ ইউনিয়ন কমিউনিটি পুলিশিং এর সভাপতি মাইন উদ্দিন পাটওয়ারীসহ স্থানীয়রা জানান, মূল সেতুটির পশ্চিম পাশে গত এক বছর যাবত সেতুর এপ্রোজ সড়কের নিচ থেকে বালি সরে গিয়ে রাস্তাটি তলিয়ে যায়। যা আমরা সেতু সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে বার-বার জানিয়েও কোন ধরনের প্রতিকার পাওয়া যায়নি। এই ধসে সড়কটি ভাঙনের হুমকির মুখে থাকার পাশাপাশি বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা রয়েছে।

এদিকে সেতুটি যান চলাচলে খুলে দেয়ার পর থেকে নিকলী হাওড়ের ন্যায় এখন ধানুয়া মিনি হাওড়ের নাম চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে। এরপর থেকে প্রতিদিনই সৌন্দর্য দেখার জন্য শত শত মানুষ বিকালে আড্ডা জমাতে শুরু করে এবং দূর-দূরান্ত থেকে ছুটে আসে ভ্রমণ পিপাসুরা।

এ বিষয়ে ফরিদগঞ্জ উপজেলা প্রকৌশলী আবরার আহম্মেদ জানান, ধানুয়া-গাজীপুর সেতুর পশ্চিম পাশে ব্রিজের এপ্রোজ সড়কের নিচের বালি সরে গিয়ে বড় ধরনের গর্ত হয়েছে, অতি শীঘ্রই সড়কটি মেরামত করা হবে।

ফরিদগঞ্জ প্রতিনিধি

Leave a Reply

Your email address will not be published.