‘সব কাজ ওলট–পালট হয়ে গেল! স্তব্ধ হয়ে গেলাম’

‘সব কাজ ওলট–পালট হয়ে গেল! স্তব্ধ হয়ে গেলাম'

শনিবার রাতে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে বিএম কনটেইনার ডিপোতে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনায় হতাহতের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। ভয়াবহ এই ঘটনায় শোকের ছায়া নেমেছে সারা দেশে। বাদ নেই বিনোদনজগতের তারকারাও। শনিবার রাত থেকেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে চট্টগ্রামের অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা নিয়ে শোক প্রকাশ করেছেন তাঁরা।

কুমার বিশ্বজিৎ, সংগীতশিল্পী
সীতাকুণ্ডে অগ্নিকাণ্ডে এত প্রাণহানি ও ক্ষয়ক্ষতির জন্য গভীরভাবে শোকাহত।

শাকিব খান, চিত্রনায়ক
চট্টগ্রামের জন্য প্রার্থনা।

প্রিন্স মাহমুদ, গায়ক ও গীতিকবি
দেশ এখন সিঙ্গাপুর, জ্বলছে সীতা নিকট-দূর//কুণ্ডে করে অগ্নিস্নান, নাকে পোড়া মাংসঘ্রাণ।

আরিফিন শুভ, চিত্রনায়ক
চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সীতাকুণ্ডে বিস্ফোরণে হতাহত মানুষের জন্য জরুরি ভিত্তিতে রক্ত প্রয়োজন। আশপাশে যাঁরা আছেন, দ্রুত সহযোগিতা করুন।

মীর সাব্বির, অভিনেতা
এখন চট্টগ্রামের ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের জন্য আমাদের প্রার্থনা করা ছাড়া কিছুই করার নেই। ঘটনা শুনেই খারাপ লাগছে।

‘সব কাজ ওলট–পালট হয়ে গেল! স্তব্ধ হয়ে গেলাম'

অপি করিম, অভিনেত্রী
আজকের মতো অসহায় সকাল যেন আর ফিরে না আসে!

শাহনাজ খুশি, নাট্য অভিনেত্রী
ভোর থেকে টেলিভিশন স্ক্রল আর অনলাইন নিউজের দিকে তাকিয়ে বসে আছি! রুটিনমতো সব কাজ ওলট–পালট হয়ে গেল! স্তব্ধ হয়ে গেলাম! শেষ খবরে দেখছি মৃতের সংখ্যা এখন পর্যন্ত ৩৭। আহত তিন শতাধিক! কী বলব! আন্দাজ করছি, সীতাকুণ্ডের নির্মম ভয়াবহতা! এখনো নাকি আগুন নিয়ন্ত্রণে না, কী ভয়ানক অবস্থা! সীতাকুণ্ডের অগ্নিকাণ্ডের ভয়াবহতায়/অপূরণীয় ক্ষতিতে মর্মাহত! শোক এবং সমবেদনা!

 

‘সব কাজ ওলট–পালট হয়ে গেল! স্তব্ধ হয়ে গেলাম'

মাসুদ হাসান উজ্জ্বল, পরিচালক
আমরা কেবল প্রার্থনা করতে পারি মুষলধারে বৃষ্টির। এখনো দাউ দাউ আগুন জ্বলছে সীতাকুণ্ডের বিএম ডিপোতে। এখন পর্যন্ত নিহতের সংখ্যা ৩১। অন্যান্য নিহত ব্যক্তির মধ্যে ফায়ারফাইটার রয়েছেন সাতজন, দুজন এখনো নিখোঁজ। তাঁদের মধ্যেই ১৫ জন এখন গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে। হাইড্রোজেন পারক্সাইডের বিস্ফোরণ হয়েছে বলেই আগুন ছড়িয়েছে বেশি। এখনো মুহূর্তে মুহূর্তে বিস্ফোরণ হচ্ছে! এমন অসহায় মৃত্যু কোনোমতেই মেনে নেওয়া যায় না! ফায়ারফাইটারদের এমন মৃত্যু আরও বেশি অগ্রহণযোগ্য। সব সময় বড় কোনো অগ্নিকাণ্ড হলে এই বিষয়টাই সামনে এগিয়ে আসে যে আমাদের যথেষ্ট পরিমাণ আধুনিক এবং উন্নত ফায়ারফাইটিং উপাদান নেই, নেই আন্তর্জাতিক মানের প্রশিক্ষণ। যাঁরা নিজের কর্মের প্রতি দায়বদ্ধতার কারণে জীবন উৎসর্গ করতে পারেন, তাঁদের সততা ও আন্তরিকতা নিয়ে কোনো প্রশ্ন উঠতে পারে না। এই অসীম সাহসী এবং আত্মত্যাগী মানুষগুলোর কেবল কিছু উন্নত এবং পর্যাপ্ত সরঞ্জাম আর প্রশিক্ষণ দরকার। জানি, হাইড্রোজেন পারক্সাইডের এই বিস্ফোরণ এতটাই আকস্মিক যে শত প্রশিক্ষণেও হয়তো কিছু করার ছিল না! কিন্তু কেবল নিজের দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে এতগুলো তাজা প্রাণ জ্বলন্ত পুড়ে মরে গেল, এটা মেনে নিতে ভীষণ কষ্ট হচ্ছে।

সাগর জাহান, নাট্য নির্মাতা
দায়িত্ব পালনে জীবন দিলেন সাতজন। আমাদের রিয়েল হিরো… আমাদের ফায়ার ফাইটার্স… গভীর শ্রদ্ধা আর ভালোবাসা।

জিয়াউল ফারুক অপূর্ব, নাট্য অভিনেতা
চট্রগ্রামের সীতাকুণ্ডে একটি কনটেইনার ডিপোতে রাত ১১টায় ভয়াবহ বিস্ফোরণ হয়েছে৷ কিছু হতাহতের খবর শোনা যাচ্ছে, আহত হয়েছেন অর্ধশতাধিক মানুষ। ঘটনার পরপরই আহত ব্যক্তিদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনা হয়েছে। আগুন এখনো নিয়ন্ত্রণের বাইরে। অসংখ্য অ্যাম্বুলেন্স প্রয়োজন। চট্টগ্রামের সব কটি সরকারি/বেসরকারি হাসপাতালের অ্যাম্বুলেন্স ফায়ার সার্ভিসের পক্ষ থেকে অতি দ্রুত সীতাকুণ্ডে যেতে বলা হচ্ছে। চট্টগ্রাম হাসপাতালে আহত ব্যক্তিদের রক্তের প্রয়োজন হতে পারে। আশপাশের সবাই রক্ত দিতে প্রস্তুত থাকুন। আল্লাহ সবাইকে হেফাজত করুন।

‘সব কাজ ওলট–পালট হয়ে গেল! স্তব্ধ হয়ে গেলাম'

মেহজাবীন চৌধুরী, নাট্য অভিনেত্রী
অসংখ্য অ্যাম্বুলেন্স জরুরি প্রয়োজন। চট্টগ্রামের সব কটি সরকারি, বেসরকারি হাসপাতালের অ্যাম্বুলেন্স ফায়ার সার্ভিসের পক্ষ থেকে অতি দ্রুত সীতাকুণ্ডে যেতে বলা হচ্ছে। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ব্যাপক রক্তের প্রয়োজনও হতে পারে। স্থানীয় লোকজন প্লিজ রক্তদানে চমেকে আসুন।

‘সব কাজ ওলট–পালট হয়ে গেল! স্তব্ধ হয়ে গেলাম'

ফারহান আহমেদ জোভান, নাট্য অভিনেতা
সীতাকুণ্ডে এই ঘটনায় যাঁরা নিহত হয়েছেন, তাঁরা ওপারে ভালো থাকুন। যাঁরা বেঁচে আছেন, তাঁরা অতি দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠুক। রক্ত দেওয়া থেকে শুরু করে চিকিৎসার যাবতীয় কর্মকাণ্ডে সবাই যাঁর যাঁর অবস্থান অনুযায়ী সাহায্য করুন।

তাসনিয়া ফারিণ, নাট্য অভিনেত্রী
চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড উপজেলার বিএম কনটেইনার ডিপোতে অগ্নিকাণ্ড ও পরবর্তী বিস্ফোরণে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৭ জনে দাঁড়িয়েছে এবং এ ঘটনায় পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীসহ শতাধিক মানুষ দগ্ধ হয়েছেন। আগুন এখনো নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়নি। প্রার্থনা, আসুন একসঙ্গে জীবন বাঁচাতে এগিয়ে আসি।

ইমতিয়াজ বর্ষণ, অভিনেতা

জরুরি জরুরি, চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড উপজেলার সোনাইছড়ি এলাকায় বিএম কনটেইনার ডিপোতে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। অসংখ্য অ্যাম্বুলেন্স প্রয়োজন। চট্টগ্রামের সব কটি সরকারি/বেসরকারি হাসপাতালের অ্যাম্বুলেন্স ফায়ার সার্ভিসের পক্ষ থেকে অতি দ্রুত সীতাকুণ্ডে যেতে বলা হচ্ছে। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ব্যাপক রক্তের প্রয়োজনও হতে পারে। যাঁরা রক্ত দিতে পারবেন, তাঁরা দয়া করে চট্টগ্রাম মেডিকেল হাসপাতালে চলে আসুন।

‘সব কাজ ওলট–পালট হয়ে গেল! স্তব্ধ হয়ে গেলাম'

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *