হাজীগঞ্জে ইউএনওকে বিদায় সংবর্ধনা

হাজীগঞ্জ প্রতিনিধি: হাজীগঞ্জের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোমেনা আক্তারকে বিদায়ী সংবর্ধনা দিয়েছে উপজেলা পরিষদ। মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলা চেয়ারম্যান গাজী মো. মাইনুদ্দিনের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত বদলী জনিত বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে ইউএনওকে ফুলেল শুভেচ্ছা ও সম্মামনা ক্রেষ্ট প্রদান করা হয়। এ সময় আবেগঘন পরিবেশের সৃষ্টি হয়।
উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান গোলাম ফারুক মুরাদের উপস্থাপনায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা চেয়ারম্যান গাজী মো. মাইনুদ্দিন, সরকারি কর্মকর্তাদের পক্ষে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. মেহেদী হাসান মানিক, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা দিলরুবা খানম, হাজীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ জোবাইর সৈয়দ, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. আবু সাইদ চৌধুরী, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা প্রকৌশলী মো. জাকির হোসাইন।
এছাড়াও বক্তব্য রাখেন, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মির্জা শিউলী পারভীন মিলি, ইউপি চেয়ারম্যানদের পক্ষে বক্তব্য রাখেন, রাজারগাঁও ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুল হাদী মিয়া, বাকিলা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান মিলন, কালচোঁ দক্ষিণ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মানিক হোসেন প্রধানীয়া, গন্ধর্ব্যপুর উত্তর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিন বাচ্চু।
অনুষ্ঠানের শুরুতেই পবিত্র কোরআন মাজীদ থেকে তেলওয়াত করেন, গন্ধর্ব্যপুর উত্তর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কাজী নুরুর রহমান মিলন, গীতা পাঠ করেন উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজার সুনির্মল দেউরী। এ সময় সকল সরকারি কর্মকর্তা, ইউপি চেয়ারম্যান উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোমেনা আক্তার, সম্প্রতি অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক হিসাবে ফেনী জেলায় বদলী হয়েছেন।
হাজীগঞ্জ ডিগ্রী কলেজে মহান স্বাধীনতা দিবস ও জাতীয় দিবস পালিত
সাইফুল হাসান হাজীগঞ্জ প্রতিনিধি
হাজীগঞ্জ ডিগ্রি কলেজের আয়োজনে মহান স্বাধীনতা দিবস ও জাতীয় দিবস ২০২২ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ দিনে শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে কলেজের ছাত্রশিক্ষক মিলনায়তনে, আয়োজিত অনুষ্ঠানে স্বাধীনতার ও মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস নিয়ে ব্যাপক তাৎপর্যপূর্ণ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত শনিবার (২৬ মার্চ) দুপুরে হাজীগঞ্জ ডিগ্রি কলেজের পরিচালনা পর্ষদের সদস্য, শিক্ষক পরিষদের সদস্য, কলেজের একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণীর শিক্ষার্থীসহ কর্মচারী বৃন্দ শহীদ বেদিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।
এর পর কলেজের অধ্যক্ষ মাসুদ আহমদ এর সভাপতিত্বে কলেজের বাংলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক নাজমা আক্তারের পরিচালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও গভর্নিং বডির সদস্য ফরাদ হোসেন রতন।
বক্তব্যে তিনি বলেন, স্বাধীনতার ইতিহাস সম্পর্কে জানতে হলে আগে মুক্তিযোদ্ধকে জানতে হবে। তা না হলে বর্তমান প্রজন্ম স্বাধীন দেশ সম্পর্কে কিছুই বলতে পারবে না।
ওই সময় অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন কলেজে উপাধ্যক্ষ আনোয়ার উল্লাহ,কলেজ গভর্নিং বডির বিদ্যুৎশাহী সদস্য স্বপন কুমার পাল, কলেজের অভিভাবক সদস্য শামসুজ্জামান শামসু মুন্সী, কলেজের ইংরেজি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক মোঃ সেলিম, হিসাব বিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. সেলিম পাটোয়ারী, আইসিটি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক প্রদীপ কুমার দাস।
অনুষ্ঠানে আর উপস্থিত ছিলেন, কলেজের ভূমিদাতা সদস্য দেলোয়ার হোসেন মজুমদার, শিক্ষক-শিক্ষিকা ও ছাত্র-ছাত্রীবৃন্দ। দিবসটি উপলক্ষে কবিতা আবৃত্তি, দেশের গান ও নৃত্য পরিবেশন, শেষে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.