‘লাল সিং চাড্ডা’র জন্য ৯০ কোটি রুপি দেবে নেটফ্লিক্স

আমির খানের ছবি মানেই বক্স অফিস হিট। তাই তো ‘লাল সিং চাড্ডা’ হিট হবে বলে ধরেই নিয়েছিলেন সবাই। এমনকি আমির নিজেও। এ জন্য হয়তো প্রেক্ষাগৃহে মুক্তির ছয় মাস আগে ওটিটিতে মুক্তি দিতে চাননি তিনি। ছয় মাস পর ছবি স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্মে দিলে এমনিতেই ছবির দাম কমে যায়। তার ওপর দেশে বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়েছে ছবিটি। এই কারণে ‘লাল সিং চাড্ডা’ নিয়ে নেটফ্লিক্সের আগ্রহও কমে যায়। এরপর তো দর–কষাকষি শুরু হলে একপর্যায়ে ‘লাল সিং চাড্ডা’ নিয়ে তাদের আলোচনাও ভেস্তে যায়।

ওই আলোচনা ভেস্তে যাওয়ার কারণ জানিয়েছিল ভারতীয় সংবাদমাধ্যম বলিউড হাঙ্গামা। নেটফ্লিক্স চাইছিল ছয় মাস নয়, আরও আগেই ছবিটি মুক্তি দিতে। ‘লাল সিং চাড্ডা’র জন্য তারা ৮০ থেকে ৯০ কোটি রুপি দাম দিতে প্রস্তুত ছিল। কিন্তু ৬ মাস পর মুক্তি দিলে তারা সর্বোচ্চ ৫০ কোটি রুপি দেবে। তখন আমির জানিয়ে দেন, তিনি ১২৫ কোটির নিচে বেচবেন না। এভাবেই ভেস্তে যায় দুই পক্ষের আলোচনা।

ভারতের দর্শক মুখ ফিরিয়ে নিলেও বিদেশে ঠিকই সাড়া ফেলেছে ‘লাল সিং চাড্ডা’। ২০২২ সালে বিদেশে সবচেয়ে বেশি আয় করা হিন্দি ছবি হিসেবে ‘লাল সিং চাড্ডা’র নাম শীর্ষে আছে।

‘লাল সিং চাড্ডা’র জন্য ৯০ কোটি রুপি দেবে নেটফ্লিক্স

বিদেশে এই ছবি মুক্তি পাওয়ার প্রথম সপ্তাহে ৫৯ কোটি রুপি আয় করে। এটি একটা বিরল ঘটনা, যেখানে দেশে মুক্তির দুই সপ্তাহ পর ৫৭ দশমিক ৪৮ কোটি রুপি আয় করেছে, সেখানে বিদেশে এক সপ্তাহের আয় আরও বেশি। বিদেশে সাড়া ফেলার পর ছবিটি নিয়ে আবারও নেটফ্লিক্স ও আমিরের মধ্যে আলোচনা শুরু হয়েছে। বিশ্বজুড়ে আমির খানের অনেক ভক্ত রয়েছেন। তা ছাড়া আমির পশ্চিমে পরিচিত মুখ।

অন্যদিকে বিশ্বব্যাপী নেটফ্লিক্সের ২০০ মিলিয়নের বেশি সাবস্ক্রাইবার আছেন। এ দুই বিষয় বিবেচনা করে তারা আবার আলোচনায় বসেছে।

এবার নেটফ্লিক্স ৯০ কোটি রুপি অফার করেছে ছবিটির জন্য। আর ওটিটিতে ছবিটি প্রিমিয়ার হতে পারে আট সপ্তাহ পর। চুক্তিটি এই সপ্তাহে স্বাক্ষরিত হবে। শীঘ্রই এই চুক্তির ঘোষণা আসতে পারে বলে জানিয়েছে বলিউড হাঙ্গামা। ১৮০ কোটি রুপি বাজেটের এই ছবি দেশ-বিদেশ মিলিয়ে পকেটে পুরেছে প্রায় ১২৭ কোটি রুপি। তাই নির্মাতারা এখনো ‘লাল সিং চাড্ডা’ ছবি থেকে লাভের মুখ দেখতে পাননি। ওটিটিতে ছবিটি বিক্রি করতে পারলে লাভের মুখ দেখতে পাবেন নির্মাতারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.