চাঁদপুর জেলা প্রশাসনের নববর্ষের কর্মসূচি

আবদুল গনি চাঁদপুর জেলা প্রশাসনের আয়োজনে এবার নববর্ষের কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। চাঁদপুর জেলা প্রশাসনের আয়োজনে বুধবার ৬ এপ্রিল সকাল ১১ টায় জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে নববর্ষ ১৪২৯ উদযাপন উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশের সভাপতিত্ব করেন। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো.ইমতিয়াজ হোসেন পরিচালনা করেন। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে পহেলা র‌্যালি,মেলা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। সভায় বৈশাখি উৎসব অন্ষ্ঠুান বিষয়ে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নাছির উদ্দিন আহমেদ,সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুদীপ্ত রায়, পৌরসভার মেয়র মো.জিল্লুর রহমান জুয়েল,স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা ডা.সৈয়দা বদরুন্নাহার চৌধুরী ও প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটওয়ারী প্রমুখ। পবিত্র মাহে রমজান এবং করোনার কথা বিবেচনায় রেখে প্রতিবছরের ন্যায়,বর্ষবরণ র‌্যালি, সাংস্কৃতিক অন্ষ্ঠুান ও দিনব্যাপি মেলার আয়োজন করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সকাল ৮ টায় চাঁদপুর হাসান আলী সরকারি হাইস্কুল মাঠ থেকে বাংলা নববর্ষকে স্বাগত জানিয়ে র‌্যালি বের হবে। সকাল নয়টায় বৈশাখি মেলার শুভ উদ্ভোধন। প্রেসক্লাব ঘাট ডাকাতিয়া নদীর তীরে মেলা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। জেলা প্রশাসক বলেন,‘রমজান মাসে উপলক্ষে আমাদের সময়সীমা স্বণ্প পরিসরে হবে। আগে সন্ধ্যা পর্যন্ত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হতো কিন্তু এবার রমজান মাসে পহেলা বৈশাখের উৎসব হতে যাচ্ছে। রোজার কথা চিন্তা করে দুপুর ৩ টার মধ্যে মেলা সমাপ্তি করা হবে। অনুষ্ঠানের মধ্যে অবশ্যই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। তিনি আরো বলেন,‘ বাংলা নববর্ষ আমাদের সার্বজনীন একটি উৎসব। গত ২ বছর করোনার কারণে আমরা এ অনুষ্ঠান করতে পারিনি। এ বছর সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী আমরা এ উৎসব উদযাপন করবো। রমজানের কোনো ব্যাঘাত না ঘটে সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। সরকারি নির্দেশনা মেনে এবারের পহেলা বৈশাখের অনুষ্ঠান হচ্ছে।’ সভায় বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ,শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাগণ ও সাংবাদিকগণ উপস্হিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.